Datascape

একশ তরুণ গবেষক তৈরিতে কাজ করবে ডাটাস্ক্যাপ

গত এক যুগে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। ২০৪১ সালে উন্নত দেশের কাতারে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখছে বাংলাদেশ। দেশের মোট জিডিপি, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, মাথাপিছু আয়, প্রবৃদ্ধির হারসহ অন্যান্য উন্নয়ন সূচকের অভাবনীয় অগ্রগতি এবং সরকারের সময় উপযোগী দিক নির্দেশনায় দ্রুত এগিয়ে চলেছে দেশ ।

অর্থনৈতিক উন্নয়নের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাংলাদেশের গবেষণা ক্ষেত্রে তেমন উন্নয়ন হয়নি যেখানে একটি দেশের টেকসই উন্নয়নে গবেষণা অপরিহার্য। অর্থনৈতিক উন্নয়নের সঙ্গে সঙ্গে আমরা যদি শিক্ষা ও গবেষণা খাতকে বিশ্বমানে উন্নত না করতে পারি তাহলে অদূর ভবিষ্যতে আমাদের এ উন্নয়ন মুখ থুবড়ে পড়বে।

বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে অধ্যাপকদের সরাসরি তত্ত্বাবধানে গবেষণার কাজ করার সুযোগ পেয়ে থাকে মূলত পিএইচডি গবেষক/শিক্ষার্থীরা, কিন্তু গবেষণার সংস্কৃতি তৈরির জন্য শিক্ষার্থীদের অনার্স পড়ার সময় থেকেই গবেষণার মৌলিক বিষয়গুলো সম্পর্কে বিস্তর ধারণা এবং ব্যবহারিক জ্ঞানার্জন করতে হয়।

\"\"

চলমান এই শূন্যতা পূরণের লক্ষ্যে ডাটাস্ক্যাপ হাতে নিয়েছে ইউথ রিসার্চার প্রোগ্রাম বা তরুণ গবেষক কার্যক্রম। বিগত সাত বছর ধরে ডাটাস্ক্যাপ রিসার্চ অ্যান্ড কনসালটেন্সি লিমিটেড একটি স্বতন্ত্র গবেষণা প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংগঠনের হয়ে বিভিন্ন সামাজিক গবেষণা ও মাল্টিন্যাশনাল এবং ন্যাশনাল ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের হয়ে বাজার গবেষণার কাজে সুনামের সঙ্গে অবদান রেখে চলেছে। গবেষণার পাশাপাশি ডাটাস্ক্যাপ দক্ষতা উন্নয়ন এবং তরুণ গবেষক তৈরির লক্ষ্যে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন ধরনের প্রশিক্ষণের আয়োজন করে যাচ্ছে।

তরুণ শিক্ষার্থীদের গবেষণায় আগ্রহী করে তোলা এবং হাতে কলমে গবেষণার প্রাথমিক বিষয়াদি শিক্ষা দেওয়ার জন্য এই ব্যতিক্রমধর্মী কার্যক্রম হতে নিয়েছে ডাটাস্ক্যাপ। তরুণ গবেষণা কার্যক্রমের মাধ্যমে ২০২২ সালে প্রশিক্ষত ১০০ জন তরুণ গবেষক তৈরিতে কাজ করবে সংস্থাটি। দেশ বির্নিমাণে ভালো মানের গবেষণা হবে দেশের তরুণদের হাত ধরে। ৬ মাসব্যাপী এ কার্যক্রমে দেশের সরকারি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও গবেষকগণ সেশন পরিচালনা করবেন।

 

Share this: